• Homeopathybd-add-Leaderboar

রূপচর্চায় আদার ব্যবহার

ad 600x70

রূপচর্চায় আদার ব্যবহারভাবছেন, আদার মতো ঝাঁঝালো জিনিস রূপচর্চায় ব্যবহার করবেন? ঠিক এখানটাতেই ভুল করে সবাই। আদার স্বাদ ঝাঁঝালো হলে কী হবে, আদায় রয়েছে এমন কিছু উপাদান যা ত্বক এবং চুলের যত্নে অসাধারণ কাজ দেয়।

আদা মূলত ব্যবহার করা হয় রান্নায় স্বাদ বাড়াতে। আদার আছে দরকারি অনেক পুষ্টিগুণ এবং এটা সবচেয়ে ভালো ঘরোয়া ভেষজ ওষুধ। কিন্তু এটুকুই আদার সব নয়। জেনে নিন রূপচর্চায় আদার ৫টি ব্যবহার।

১. বয়সের ছাপ প্রতিরোধে :
আদায় রয়েছে শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা ত্বকের বিষাক্ত পদার্থ কমিয়ে রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়। এতে ত্বক বুড়িয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা পায়। আপনার প্রতিদিনের ফেসপ্যাকে মিশিয়ে নিন খানিকটা আদার রস।

২. রোদে পোড়া দাগ দূর করতে :
রোদে পোড়া দাগ দূর করতেও আদার জুড়ি নেই। বাইরে থেকে ফিরে শরীরের রোদে পোড়া অংশগুলোতে লাগিয়ে ফেলুন তাজা আদার রস। রোদে পোড়া দাগ দূর হয়ে যাবে।

৩. ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে :
তাত্‍ক্ষণিকভাবে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে চান? এক টুকরো তাজা আদা হালকা থেঁতো করে ত্বকে ঘষতে থাকুন। পাঁচ মিনিটের ভেতরেই ত্বকের উজ্জ্বলতা বেড়ে যাবে।

৪. চুল পড়া কমাতে :
আদা চুল পড়া কমায় এবং চুলের গোড়া শক্ত করে। আদা রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করায় রক্ত মাথায় চুলের গোড়া পর্যন্ত পৌঁছে যায় যা চুল বৃদ্ধিতে সহায়ক। চুলের গোড়ায় আদার রস ভালো করে লাগান। ২০ মিনিট পর চুল শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

৫. খুশকি দূর করতে :
আদায় এমন কিছু প্রাকৃতিক গুণ আছে যা মাথার খুশকি প্রতিরোধে সহায়ক। নিয়মিত আদা ব্যবহার করলে মাত্র ৭ দিনে খুশকির পরিমাণ অর্ধেক কমে যাবে। একদিন পর পর চুলের গোড়ায় আদার রস লাগান। ৩০ মিনিট রেখে চুল ধুয়ে ফেলুন। মাত্র এক সপ্তাহ ব্যবহারেই খুশকি নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে।


Leave a comment

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।


*


 
homeopathy.com.bd
online partners namaj.info bd news update 24 Add

Read previous post:
লেবু কি কি কাজে ব্যবহার করবেন

আমাদের খাবারের স্বাদ বাড়িয়ে তোলা এবং আমাদের তেষ্টা মেটানোর জন্য লেবুর রস পান করার মধ্যেই লেবুর কার্যকারিতা সীমাবদ্ধ নয়। লেবুর...

Close